টুডে নিউজ সার্ভিস, বর্ধমানঃ টেলিফোন দপ্তরে হঠাৎই বিধ্বংসী অগ্নিকান্ড। ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমান দু’নম্বর ব্লকের বড়শুলের টেলিফোন এক্সচেঞ্জ অফিসে মঙ্গলবার দুপুরে হঠাৎই অগ্নিকান্ড। দাউ দাউ করে জ্বলতে থাকে অফিসের পাশের চত্বরে থাকা টেলিফোনের তার ও জঙ্গলের স্তুপ। আগুনের লেলিহান শিখায় এ চারিদিকে কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায়। খবর দেওয়া হয় বর্ধমান দমকল বিভাগে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় দমকল বিভাগের দুটি ইঞ্জিন। 

পাশাপাশি খবর পেয়ে বর্ধমান দু’নম্বর ব্লক সমষ্টি উন্নয়নের আধিকারিক সুবর্ণা মজুমদার সহ পঞ্চায়েত  সমিতির সমস্ত আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হয়। প্রায় কয়েক ঘন্টা পর নিয়ন্ত্রণে আসে আগুন।

এ দিনের এই অগ্নিকান্ডের বিষয়ে পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি অরুণ গোলাদার বলেন, বিডিও অফিসে মিটিং চলছিল হঠাৎ দেখতে পাই আগুনের লেলিহান শিখায় চারিদিকটা কালো ধোঁয়ায় ঢেকে গেছে। আমরা তখন ছুটে আসি এবং ইলেকট্রিক অফিসে ফোন করি যাতে সমস্ত রকম ইলেকট্রিসিটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। 

স্থানীয় বাসিন্দা বিশ্বজিৎ মন্ডল, বলেন, এই অফিসের পাশেই আমার বাড়ি আমরা তড়িঘড়ি বাড়ির গ্যাসের সিলিন্ডার সরাই। এই বিধ্বংসী অনিকান্ডে আমরা খানিকটা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছি। যদিও আগুন এখন নিয়ন্ত্রণে আছে। 

দমকল বিভাগের স্টেশন অফিসার দীপক সেন বলেন, এটা ইচ্ছাকৃতভাবে আগুন লাগানো হয়েছে। আগুন না লাগানো হলে এখানে কি করে আগুন লাগে এই জায়গায়। ভিতরে যে সমস্ত তার গুলি ছিল সেগুলো পুড়ে গেছে। আগুন এখন নিয়ন্ত্রণে। এই অগ্নিকাণ্ডে কোনো হতাহতের কোনো খবর নেই এবং এখনও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি।।

এদিন স্থানীয় মহিলারা বারবার অভিযোগ তোলেন, এর ভিতরে বিভিন্ন রকম তার পরে রয়েছে এবং গাছপালা গজে উঠেছে যেগুলো কোনো দিনই পরিষ্কার করা হয় না তার জন্যই এই বড়সড় ঘটনা ঘটেছে। অবিলম্বে এই টেলিকম সংস্থার চত্বর পরিষ্কার করা হোক এবং নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হোক এমনকি এদিনের এই ঘটনা যাতে পুনরায় না ঘটে, সেদিকে খেয়াল রাখুন প্রশাসন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here