টুডে নিউজ সার্ভিস, বর্ধমানঃ  পূর্ব বর্ধমান সদর  তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনায় গ্রেফতার হলো পূর্ব বর্ধমান জেলার সাধারন সম্পাদক শিবশঙ্কর ঘোষ। বুধবার সন্ধ্যায় বর্ধমান শক্তিগড় এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে সাধারন সম্পাদককে।বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে পেশ করা হয়। 

মঙ্গলবার বর্ধমানের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের জেরে তৃণমূলের অপর গোষ্ঠির মারের আঘাতে জখম হয়ে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যু হয় সেলিম অনুগামী অশোক মাঝির। পাশাপাশি গুরুত্ব জখম অবস্থায় একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে চিকিৎসাধিন অশোক মাঝির স্ত্রী চন্দনা মাঝি।

তৃণমূল নেতা  অশোক মাঝি খুনের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় সাধারণ সম্পাদক শিবশঙ্কর ঘোষকে। এই ঘটনার পরই ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে জেলার রাজনৈতিক মহলে উল্লেখ্য, বিধানসভা নির্বাচনে পর থেকেই এলাকা দখলকে কেন্দ্র করে ৬ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর মহঃ সেলিমের সঙ্গে বিরোধী গোষ্ঠী শিবশঙ্কর ঘোষের সংঘর্ষ বাঁধে।সংঘর্ষের মাত্রা ছাড়িয়ে শিবশঙ্কর গোষ্ঠির মারের আঘাতে মৃত্যু হয় অশোক মাঝির। এরপর শিবশংকর ঘোষ সহ বেশ কয়েকজনের নামে বর্ধমান থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।

এই ঘটনাটি গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব বলে মানতেই চাইছেননা তৃণমূলের বর্ধমান জেলা মুখপাত্র প্রসেনজিৎ দাস তিনি বলেন আমাদের দলে কোনো গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নেই। পাড়া গত বা ব্যাক্তিগত বিবাদের জেরেই কি ঘটেছে সেটা পুলিশ দেখবে। পাশাপাশি বিজেপি কো-কনভেনার কল্লোল নন্দন বলেন মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন খেলা হবে। ভোটের পর থেকেই সেই খেলাই চলছে। 

  অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কল্যান সিংহ রায় বলেন,  রাত  শক্তিগড় বাস স্ট্যান্ড থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ৩৪১,৩০৭,৩২৬ সহ একাধিক মামলা রুজু করা হয়েছে বলে জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here