বিশ্বজিৎ দাস, নদীয়াঃ  লোনে দু’চাকার গাড়ি পাইয়ে দেওয়ার নামে প্রতারণার অভিযোগে দু’জনকে গ্রেফতার করেছে কল্যাণী থানার পুলিশ। ধৃতরা হলো রানা দাস ও সুশান্ত দাস। ধৃতদের শুক্রবার কল্যাণী আদালতে পাঠানো হয়।

জানা গেছে, লোনে বাইক ও স্কুটার কিনিয়ে দেওয়ার নামে এই সহোদর দুই ভাই কল্যাণী ও তার আশপাশের সাতজন সঙ্গে এই কাণ্ড ঘটিয়েছে। এমনকি নিউটাউন এলাকাতেও তাদের জাল বিস্তার রয়েছে। সম্প্রতি দিনু দাস নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে আসেন ফাইন্যান্স কোম্পানির লোক। তিনি লোনে কেনা গাড়ির মাসিক কিস্তির টাকা দাবি করেন। কিন্তু দিনু দাস কোনও গাড়িই কেনেননি বলে জানান। এলাকার মানুষ ওই ব্যক্তিকে আটকে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করে। তখন সত্য সামনে আসে।

মাস দুয়েক আগের ঘটনা। দিনুবাবু ও কয়েকজন লোনের জন্য বিভিন্ন প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দিয়েছিলেন রানা দাস নামে এক যুবককে। রানা মোবাইলের রিচার্জের দোকান চালান। কিন্তু লোন পাননি কেউই। পরদিন ফের ফাইন্যান্স কোম্পানির লোক আসেন। তাঁদের পরামর্শে দিনু দাস ও অন্যান্যরা কল্যাণী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার সকালে প্রথমে রানাকে ও পরে সুশান্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতদের নিয়ে তল্লাশিও চালানো হয় নিউটাউন এলাকায় বাকিদের খোঁজে। কিন্তু ফেরার বাকি অভিযুক্ত আসিক, মজরুল ও নিয়াসুদ্দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here