রমা চ্যাটার্জি, বালুরঘাটঃ করোনা ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ দুটি আলাদা কোম্পানির ওষুধ হওয়ায় আতঙ্কে ভুগছেন এক টিকা গ্রহীতা। এমনকি আতঙ্কেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ওই ব্যক্তি। এই মুহূর্তে তার করণীয় কি তা বুঝতে না পেরে সমস্যা সমাধানে স্বাস্থ্য দপ্তরের সাহায্য প্রার্থী ওই টিকা গ্রাহক অরিজিৎ ঘোষ।

বালুরঘাটের মাস্টার পাড়ার বাসিন্দা বিদ্যুৎ দপ্তর এর ঠিকা কর্মী অরিজিৎ ঘোষ গত ২৭ এপ্রিল করোনার প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন নেন। বালুরঘাট জেলা হাসপাতাল থেকে সেদিন তাকে কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন দেওয়া হয়। পরবর্তীতে গত ৬ জুন তিনি করোনার দ্বিতীয় ডোজ নেন। 

এদিকে দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পরও, গত দুদিন আগে তার মোবাইলে দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার মেসেজ আসে। এরপরই তিনি সন্ধিগ্ধ হয়ে ওঠেন। দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার পরও কেন আবার দ্বিতীয় ডোজের মেসেজ এসেছে সেটা জানতেই তিনি সার্টিফিকেট ডাউনলোড করেন। তিনি জানতে পারেন, ২৭ এপ্রিল তার কোভিশিল্ড এবং ৬ জুন তাকে কোভ্যাকসিন টিকা দেওয়া হয়েছে। দুই বারে দুই রকম ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে, বিষয়টি জানতে পেরেই তিনি আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েন। 

অরিজিৎ ঘোষ নামে ওই ব্যক্তি এদিন জানান, দ্বিতীয় ডোজ ভ্যাকসিন নেওয়ার পর থেকেই তিনি শারীরিক অসুস্থতা বোধ করছিলেন। বর্তমানে দুই ধরনের ভ্যাকসিনের বিষয়টি জানতে পেরে তিনি আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। এই ঘটনার পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া বা সুরাহা কি হতে পারে সেই বিষয়ে তিনি চিন্তিত হয়ে পড়েছেন। বিষয়টি তিনি স্বাস্থ্য দপ্তর কে জানাবেন বলে জানান। যদিও এ বিষয়ে স্বাস্থ্য দপ্তরের কোন প্রতিক্রিয়া এখনো পাওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here