নিখিল কর্মকার, নদীয়াঃ তৃণমূল সরকারের ফিরলেও তৃণমূলের অত্যাচারে প্রায় নয় মাস ধরে ঘরছাড়া তৃণমূলের ১৭ টি পরিবার। বাড়িতে ফেরার চেষ্টা করলে আবারও বেধড়ক মার। রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি এক প্রবীণ তৃণমূল কর্মী। অভিযোগের তীর তৃণমূলের আশ্রিত দুষ্কৃতী মনোজ সরকারের অনুগামীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে নদীয়ার শান্তিপুর পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সারাগর নতুন পাড়া এলাকায়।উল্লেখ্য নয় মাস আগে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের ফলে খুন হয় গোবিন্দ দাস নামে এক তৃণমূল কর্মী। এরপর থেকেই মনোজ সরকারের নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়। ভেঙে দেওয়া হয় তৃণমূল কংগ্রেসের প্রায় ১৭ টি পরিবারের ঘর বাড়ি। অভিযোগ তারপর থেকেই ভয়ে পালিয়ে যায় প্রায় ওই ১৭ টি পরিবার। তাদের অভিযোগ মনোজ সরকারের তরফ থেকে বারবার হুমকি দেওয়া হয় বাড়ি ফিরলেই মারধর করা হবে। এদিন সকালে বাড়ি ফিরলে আবারও মনোজ সরকার এর অনুগামীরা বেধড়ক মারধর করে ঘরছাড়া এক তৃণমূল কর্মীকে। এরপরই আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই তৃণমূল কর্মী শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। যদিও বর্তমানে মনোজ সরকার এক তৃণমূল কর্মীকে মারধর করে খুনের চেষ্টার ঘটনায় জেলে রয়েছে। শান্তিপুর তৃণমূল নেতৃত্ব এ বিষয়ে বলেন, কোনরকম গুন্ডামি তৃণমূল কংগ্রেস বরদাস্ত করবে না। ঘটনার তদন্ত করে পুলিশকে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here