নিখিল কর্মকার, নদীয়াঃ নদীয়া দক্ষিণ সাংগঠনিক জেলার জেলা সভাপতির পদ থেকে পদত্যাগ করলেন অশোক চক্রবর্তী। অশোক চক্রবর্তী নদীয়া দক্ষিণ সাংগঠনিক জেলা সভাপতি হওয়ার পর থেকেই বিজেপির সাংগঠনিক ক্ষমতা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পায়, এমনটাই দাবি করেন বহু বিজেপি কর্মীরা। গত বিধানসভা ভোটে নদিয়া দক্ষিণ সাংগঠনিক জেলায় ৬ টি সিটে জয়লাভ করে বিজেপি। কিন্তু কী কারণে তাহলে এই পদত্যাগের সিদ্ধান্ত! উত্তরে অশোক চক্রবর্তী জানান দীর্ঘ ২৬ বছর ধরে সাইকেলে চড়ে, হ্যারিকেনের আলোয় সভা করে বাড়িয়েছি সংগঠন! বর্তমানে একজন সাংসদ, ৫ জন বিধায়ক, কৃষ্ণগঞ্জের একটি পঞ্চায়েত আমরা চালাই, ১২৫ জন পঞ্চায়েত সদস্য আছেন, জেলা পরিষদের সদস্য আছেন তাই দলের বহর বেড়েছে অনেকটাই! এ সময় আমার চেয়েও ভালো নেতৃত্ব প্রয়োজন! আর দলকে সেই অন্বেষণ করার সুযোগের জন্যই পদত্যাগের সিদ্ধান্ত। তবে অন্য দলে যাওয়ার কোন সম্ভাবনা নেই, চাকরির বাকি আর মাত্র ১০ বছর, পরিবারকে ব্রাত্য করে রেখেছিলাম অনেকদিন, এবার তাদের একটু সুযোগ দিতে চাই।

তবে অশোক চক্রবর্তীর পদত্যাগের ফলে জেলার অধিকাংশ নেতাকর্মী যে হতাশাগ্রস্ত হবেন সে বিষয়ে নিশ্চিত দলের পুরোনো দিনের কর্মীরা। বিশেষ সূত্রে খবর অনুযায়ী জানা যায়, সাংসদ এবং কয়েকজন বিধায়ক ,জনপ্রতিনিধি হয়েও  দলের নিয়ন্ত্রক হয়ে পড়েছিলেন বেশ কিছুদিন যাবৎ! ফলে গুরুত্ব  হারাচ্ছিলেন সভাপতি।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here