অরুনাভ দত্ত, বালুরঘাটঃ ২৬ ফেব্রুয়ারী রবিবার স্বর্গীয়া বীথিকা দত্তের দুই সুযোগ্য সন্তান তুষার কান্তি দত্ত এবং জগন্নাথ দত্তের যৌথ উদ্যোগে দক্ষিণ দিনাজপুর ভলান্টারি  ব্লাড ডোনার্স অ্যাসোসিয়েশনের ব্যবস্থাপনায় ও দক্ষিণ দিনাজপুর জার্নালিস্ট ক্লাবের সহযোগিতায়  জার্নালিস্ট ক্লাব প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হলো ষষ্ঠ প্রয়াণ বার্ষিকীতে স্বেচ্ছায় রক্তদান শিবির এবং তাদের স্বর্গীয় পিতা ভূদেব দত্তের স্মৃতিতে স্মরণিকা প্রকাশ অনুষ্ঠান। বালুরঘাট শহরের এই দুই কৃতী সন্তান তুষারকান্তি দত্ত এবং তার ভাই জগন্নাথ দত্তের এমন অভিনব উদ্যোগ জেলাবাসীর হৃদয় জয় করে নিয়েছে। প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে আজকের এই রক্তদান শিবির এর শুভ সূচনা করেন উপস্থিত অতিথিবৃন্দ। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন কবি অমল বসু । অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জগন্নাথ দত্ত। এছাড়াও উপস্থিত বিশেষ ব্যক্তিত্বরা তাদের বক্তব্যের মাধ্যমে তুলে ধরেন স্বর্গীয় ভুদেব দত্তের নানান স্মৃতিচারণ। এই মহতী রক্তদান শিবিরে বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বদের গৌরবময় উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত। যারা উপস্থিত ছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম ডা: দেবব্রত দে, ভারপ্রাপ্ত চিকিৎসক বালুরঘাট ব্লাড সেন্টার, ডা: সৌরভ কুণ্ডু বিশিষ্ট দন্ত চিকিৎসক, মৃণাল চক্রবর্তী, বিশিষ্ট কবি ও সম্পাদক দধীচি পত্রিকা, স্বপন কুমার বিশ্বাস, বিশিষ্ট সমাজসেবী ও প্রাক্তন শিক্ষক বালুরঘাট, সুনীল সরকার, দক্ষিণ দিনাজপুর ভলান্টারি ব্লাড ডোনার্স অ্যাসোসিয়েশনের কর্মকর্তা, বিশিষ্ট সমাজসেবী বঙ্গরত্ন তাপস চক্রবর্ত্তী, সমাজকর্মী সূরজ দাশ সম্পাদক উজ্জীবন সোসাইটি, নীলোৎপল সরকার, দক্ষিণ দিনাজপুর ভলান্টারি ব্লাড ডোনার্স অ্যাসোসিয়েশনের উল্লেখযোগ্য কর্মকর্তা, ড. সমিত ঘোষ, বিশিষ্ট গবেষক ও লেখক কৌশিক বিশ্বাস, বিশিষ্ঠ শিক্ষক ও ইতিহাস গবেষক, প্রদীপ সাহা রক্তদান আন্দোলনের বিশেষ ব্যক্তিত্ব, অসিত রায়, বিশিষ্ট সমাজসেবী এবং পতঞ্জলি সংস্থার জেলার কর্মী, শুভাশিস চক্রবর্ত্তী বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী ও নাট্য ব্যক্তিত্ব বালুরঘাট, গৌরাঙ্গ দাস, বিশিষ্ট শিক্ষক, দিলীপ মজুমদার, কবি ও পঞ্চায়েত কর্মী, মেহবুব আলম, উই আর সেভেন সংগঠনের বিশিষ্ট সংগঠক, বিশ্বজিৎ মাহাতো, পীযুষ কান্তি মজুমদার, সনাতন পাল সহ আরো অনেকে। 

এদিনের এই পুরো কার্যক্রম যিনি সুচারুরূপে সঞ্চালনা করেন তিনি হলেন আমাদের সকলের সুপ্রিয় সঞ্চালক বিভাস দাস । মধুরিমা ও রিমা এবং  উপস্থিত সকল অতিথি অভ্যাগতদের হাতে পুষ্পস্তবক তুলে দেন এবং ব্যাচ পরিয়ে অভ্যর্থনা জানান । প্রত্যেক রক্তদাতার হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে তুষার কান্তি দত্তের নিজ হাতে তৈরি বিভিন্ন ধরনের চারাগাছ। এই রক্তদান শিবিরে প্রকাশিত হয় একটি স্মরণিকা ‘পিতৃতর্পণ।’ যা রক্তদান আন্দোলনের একটি উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ। রক্তদান আন্দোলনকে বেগবান করতে এই উদ্যোগ সকলের বিশেষ নজর কাড়ে। এই শিবিরে মোট ৩২ জন স্বেচ্ছায় রক্তদান করেন। এদের মধ্যে প্রথম রক্তদাতা হলেন চারজন এবং এছাড়াও দুজন মহিলার রক্তদাতা আজকের এই রক্তদান শিবিরে রক্ত দান করলেন। আজকের এই মহতী রক্তদান শিবিরে মাননীয় সুনীল সরকার দক্ষিণ দিনাজপুর ভলান্টারি ব্লাড ডোনার্স অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে ঘোষণা দেন আগামী ৩ জুন থেকে ৫ জুন ২০২৩ রক্তদান উদ্বুদ্ধকরণ বিষয়ক সার্টিফিকেট কোর্স অনুষ্ঠিত হবে গঙ্গারামপুর রবীন্দ্র স্মৃতি বিদ্যাপীঠে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here