বিশ্বজিৎ বিশ্বাস, নদীয়াঃ বিজেপির একজন প্রতিনিধি হিসাবে বলতে পারি উপনির্বাচনে এবার তৃণমূল কংগ্রেস পর্যদুস্ত হবে। ভারতীয় জনতা পার্টি স্বমহিমায় নিজেকে প্রতিষ্ঠা করবে অর্থাৎ তৃণমূল কংগ্রেস হেরে যাবে। উপনির্বাচন নিয়ে প্রাক্তন বিজেপি নেতা তথা বর্তমান তৃণমূলের প্রথম সারির নেতৃত্ব মুকুল রায়ের মন্তব্য নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে রাজ্য রাজনিতিতে। তবে কি বিজেপি ত্যাগ করে তৃণমূলে যোগ দান করলেও তিনি এখনও পর্যন্ত বিজেপিকে মন থেকে ভুলতে পারেননি। শুক্রবার দুপুরে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের সাংগঠনিক কাজে নদিয়ায় কৃষ্ণনগরে এসে উপ নির্বাচন প্রসঙ্গে বিজেপির গুনোগান করতে দেখা গেল সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের প্রথম শ্রেণীর নেতা মুকুল রায়কে। যা ইতিমধ্যেই প্রশ্ন তুলে দিয়েছে রাজ্য রাজনৈতিক মহলে। তবে কি, বিজেপি ত্যাগ করে পুনরায় তৃণমূলের ফিরে গেলেও আজও তিনি মন থেকে ভুলতে পারেননি বিজেপিকে? এই দিন কৃষ্ণনগরে এসে প্রথমে তিনি বেলডাঙ্গার দলীয় কার্যালয়ে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

 এরপর কৃষ্ণনগর পৌরসভায় পৌঁছালে তৃণমূল নেতা অসীম সাহা তাঁকে সংবর্ধনা জ্ঞাপন করেন। সেখানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে উপ নির্বাচন প্রসঙ্গে  আমি একজন বিজেপি প্রতিনিধি হিসেবে বলতে পারি এবার তৃণমূল কংগ্রেস পর্যদুস্ত হবে। বিজেপি স্বমহিমায় নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করবে। অর্থাৎ তৃণমূল কংগ্রেস হেরে যাবে বলে বেফাঁস মন্তব্য করে ফেলেন মুকুল রায়। যদিও সেই মুহূর্তে তাঁর পাশে থাকা অন্যান্য তৃণমূল নেতৃত্ব বিষয়টি শুধরে সঠিক ব্যাখ্যা তুলে ধরেন সাংবাদিকদের কাছে। তবে একজন প্রথম সারির নেতৃত্ব কিভাবে বারংবার এই ভুল ব্যাখ্যা করতে পারেন তা ইতিমধ্যেই উঠতে শুরু করেছে একাধিক প্রশ্ন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here