সুপ্রিয় পরামানিক, বাগদাঃ
মীরজাফরের স্থান নেই তৃণমূলে। বাগদার বিজেপি বিধায়ক বিশ্বজিৎ দাস গরু পাচারের সঙ্গে যুক্ত। প্রতি মাসে ২০ থেকে ২৫ লক্ষ টাকা তুলতো এখান থেকে। গরু পাচারকারী স্মাগলার বিশ্বজিৎ দাসের তৃণমূলে কোন স্থান নেই। এলাকার তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী বৃন্দ। এই লেখা পোস্টার হেলেঞ্চা বাজারের বিভিন্ন দোকানের সামনে রাস্তায় থাকা পুলিশ ডিভাইডারে সোমবার সকাল থেকে লক্ষ্য করা যায় । 

এই বিষয়ে বাগদা তৃণমূল কংগ্রেসের পশ্চিম ব্লক সভাপতি অঘোর চন্দ্র হালদার বলেন এটা আমার জানা নেই আমি শুনলাম বিশ্বজিৎ দাসের সম্পর্কে পোস্টার পড়েছে। বিশ্বজিৎ দাস এখনও বিজেপির বিধায়ক সে ক্ষেত্রে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এটা করা হয়নি বিজেপির অন্তর দলীয় কোন্দল বলেই মনে করি। তিনি যাতে দলত্যাগ না করতে পারেন সেই কারনেই হয়ে থাকতে পারে ।

যদিও বিজেপির বাগদা ২ নং মন্ডল এর সভাপতি হরষিত চন্দ্র বালার দাবি, কি পোস্টার পড়েছে আমার জানা নেই, বিজেপি থেকে এই পোস্টার দেওয়া হয়নি বিজেপির মধ্যে কোন অন্তঃকলহ দ্বন্দ্ব নেই। তৃণমূল নেতৃত্বের ভয়ে আছে তিনি যদি তৃণমূলে আসে তাহলে তৃণমূলের নেতৃত্বে চলে যাবে, আমার বিশ্বাস এটা তৃণমূল পার্টি থেকেই করেছে ।

 এই বিষয়ে বাগদার বিজিপি বিধায়াক বিশ্বজিৎ দাসের সঙ্গে  যোগাযোগ করা হলে কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here