টুডে নিউজ সার্ভিস, বর্ধমানঃ
  বাইক চুরির ঘটনায় ১২ ঘণ্টার মধ্যেই অপরাধীকে ধরে ফেলে বিরাট সাফল্য পেল বর্ধমান থানার পুলিশ। শুক্রবার বেলা চারটে নাগাদ পূর্ব বর্ধমান জেলা শাসক চত্বরের এলাকা থেকে একটি গাড়ি চুরি হয়ে যায়। সেদিন বিকেলেই সে বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করেন গাড়ির মালিক। পরে পুলিশ সুপার কামনাশীষ সেন ও এস ডি পি ও বর্ধমান দক্ষিণ আমিনুল ইসলাম খানের নির্দেশে শহর থেকে বেরোনোর সমস্ত চেকিং পয়েন্টে নজরদারি বাড়ানো হয়। পরে এদিন রাত্রে নাড়ু গ্রাম এলাকায় চেকিং পয়েন্টের পুলিশের কাছে হাতেনাতে ধরা পড়ে যান দুষ্কৃতীরা। পুলিশ বাইকটিকে উদ্ধার করে ও দুষ্কৃতীদের আটক করে রায়না থানায় নিয়ে যায়। পুরো বিষয়টি তদন্তে ছিলেন বর্ধমান থানার এক পুলিশ আধিকারিক বিজয় পাত্র।

 একইসাথে দুষ্কৃতীদের কাছ থেকে আরও একটি বাইক উদ্ধার হয়। জিজ্ঞাসাবাদে জানা গিয়েছে, দ্বিতীয় বাইকটি ওমরপুর এলাকা থেকে চুরি করা হয়েছিল। অভিযুক্ত দুই ব্যক্তির নাম শেখ শাকিল উদ্দিন মাধবডিহি থানার খোরসিমুল এলাকায় তার বাড়ি। অপর একজন সাহিব মল্লিক কয়রাপুর এলাকার জোৎসাদিপুরে  তার বাড়ি। দুষ্কৃতীদের জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানা গিয়েছে, তারা ভিন রাজ্যে কাজ করতো। লকডাউন এর জেরে বাড়ি ফিরে এসেছে। এর পরেই বর্ধমান থেকে তারা বাইকটি চুরির পরিকল্পনা করে। যদিও দুষ্কৃতীদের দাবি এটাই তাদের প্রথম চুরি। পুরো বিষয়টি তদন্ত করছে বর্ধমান থানার পুলিশ এর পেছনে কোনো চক্র কাজ করছে কিনা? সেই বিষয়টিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here