টুডে নিউজ সার্ভিস, দুর্গাপুরঃ কাজে দেরিতে আসার প্রতিবাদ করাতে দুই মুটিয়ার বচসা, যার যবনিকা পড়লো রক্তাত্ব এক ঘটনায়। মৃত্যু হলো একজনের। বিহারের বকতিয়ারপুরের বাসিন্দা ঐ মুটিয়ার নাম যোগেন্দর রাম বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে।অভিযুক্ত কাজু রাম পলাতক।দুর্গাপুরের সেন মার্কেট বাজারের এই ঘটনায় এখন পুলিশ অভিযুক্ত কাজু রামকে খুঁজছে। ঘটনার সূত্রপাত রবিবার রাতে। প্রায়শই মদ খেয়ে কাজে দেরিতে আসতো কাজু রাম, আর এই অন্যায়ের প্রতিবাদ করেছিল বছর ৩৫ এর যোগেন্দর রাম, দু-চার কথা হতে হতে যোগেন্দরের সাথে হাতাহাতি শুরু হয়ে যায় কাজু রামের, সেন মার্কেটের পাইকারি বাজারের সবজির আড়তদার সাগর সাহার দোকানের সামনেই দুই জনের হাতাহাতি হতে হতে বস্তা কাটার ধারালো ছুরি চালিয়ে দেয় কাজু, আর সেই ছুরি এসে লাগে যোগেন্দরের পেটে।আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে স্থানীয় একটি নার্সিংহোমে নিয়ে যাওয়া হয় যোগেন্দরকে, অবস্থার অবনতি হওয়ায় সোমবার সকালে তাকে বিধাননগরে একটি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মৃত্যু হয় তার। 

   খবর পাওয়ার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে কোকওভেন থানার পুলিশ, ছুটে আসেন আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশের এসিপি পূর্ব ধ্রুবজ্যোতি মুখোপাধ্যায়। পুলিশ এক সবজি আরতদারের দোকানে লাগানো সিসিটিভি ফুটেজ দেখে তদন্তকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাইছে।

   আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশের এসিপি পূর্ব ধ্রুবজ্যোতি মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, অভিযুক্ত পালিয়ে গেছে, ঘটনার তদন্তর সাথে সাথে দুষ্কৃতীর খোঁজ চালাচ্ছেন তারা।যোগেন্দরের ভাই ভীম রাম অভিযুক্তের শাস্তি দাবী জানিয়েছে।বিহারের একই গ্রামে থাকতো যোগেন্দর ও কাজু রাম, কাজুকে বিহার থেকে কাজে দুর্গাপুরে নিয়ে এসেছিল যোগেন্দরই। পুলিশ মৃতদেহর ময়নাতদন্তের জন্য দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here