শ্রাবনী ঘোষ, কালনাঃ পূর্বস্থলীর বিস্তীর্ণ এলাকায় যশ ঝড়ের সেইরকম ভাবে প্রভাব না পড়লেও, তারপর হওয়া নিম্নচাপ ঘনীভূত হওয়ার কারণে একটানা বৃষ্টি হয়েছে, আর বৃষ্টির পর থেকেই ভাঙন শুরু শুরু হয়েছে পূর্বস্থলী দু’নম্বর ব্লকের ঝাউডাঙ্গা গ্রামের দক্ষিণ ঝাউডাঙ্গা এলাকায়। সামনেই আসছে বর্ষা আর এরপর আরও ভাঙন হলে কী অবস্থা হবে গ্রামবাসীদের, তা নিয়ে চিন্তায় রয়েছেন ওই এলাকার সমস্ত বাসিন্দারা। 

প্রতি বছরই ভাঙনে কিছু মানুষের বাড়ি নদীগর্ভে চলে যায় এই এলাকায়, এলাকারই বহু মানুষের কয়েকশো বিঘা জমি নদীগর্ভে ইতিমধ্যেই চলে গেছে। ভোটের সময় প্রতিটি পার্টির নেতারা এসেই প্রতিশ্রুতি দেয় ভাঙন রোধ করা হবে জিতে আসলে, সিপিএমের আমল থেকে আজ পর্যন্ত কোনো পার্মেন্ট ভাঙন রোধের ব্যবস্থা হয়নি গ্রামে। এমনই জানাচ্ছেন গ্রামবাসীরা, ভাঙন শুরু হলে প্রশাসনের তরফ থেকে কিছু বালির বস্তা আর কিছু পাথর ফেলে দিয়ে ক্ষান্ত হন আধিকারিকরা। কয়েক দিন বাদে জল বাড়লে সেই পাথর এবং বালির বস্তা চলে যায় নদীগর্ভে। আর প্রতিবছরই ভাঙন চিন্তাই রাখে ঝাউডাঙ্গার বাসিন্দাদের, এই বুঝি আগের ঘাটতির মতো এবারও ঘরটি নদীগর্ভে চলে যাবে! এমন চিন্তা তাড়া করে বেড়ায় এই এলাকার সমস্ত মানুষকে, অবিলম্বে সরকার দৃষ্টি আকর্ষণ করে ভাঙন রোধের ব্যবস্থা করুক চাইছেন সমস্ত ওই এলাকার গ্রামবাসীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here