নিখিল কর্মকার, নদীয়াঃ
ভোট-পরবর্তী তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হল নদীয়ার নবদ্বীপ থানার অন্তর্গত মহিশুরা গ্রাম পঞ্চায়েতের কালিনগর এলাকায়। ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় বর্তমানে রাজেশ চৌধুরী নামে একজন তৃণমূল সমর্থক সহ চারজন বিজেপি সমর্থক নবদ্বীপ রাজ্য সাধারণ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আহতদের মধ্যে তিনজন মহিলা বিজেপি সমর্থক রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সূত্রের খবর,শনিবার দুপুরে ওই এলাকায় বেশ কয়েকজন তৃণমূল সমর্থক বিজেপি সমর্থকদের বাড়িতে চড়াও হয়ে ব্যাপক মারধর করে বলে অভিযোগ বিজেপি সমর্থকদের। গত বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি হেরে যাওয়ার কারণেই তাদের ওপর পরিকল্পিতভাবে হামলা করেছে এলাকার তৃণমূল সমর্থক রা বলে অভিযোগ আক্রান্ত বিজেপি সমর্থকদের। যদিও তো তাদের উপরে ওঠা এই অভিযোগ সম্পূর্ণ নস্যাৎ করে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা লোহার রড দিয়ে ওই এলাকার একনিষ্ঠ তৃণমূল কর্মী রাজেশ চৌধুরীকে মাথায় আঘাত করে বলে অভিযোগ তৃণমূলের। বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজেশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। খবর পেয়ে এই দিন দুপুরে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় নবদ্বীপ থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেও এখনো পর্যন্ত চাপা উত্তেজনা রয়েছে কালিনগর এলাকাজুড়ে। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে শ্যামল মন্ডল নামে এক বিজেপি কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। যে কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এলাকায় বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেট। সম্পূর্ণ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে নবদ্বীপ থানার পুলিশ।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here