টুডে নিউজ সার্ভিস, বর্ধমানঃ বর্ধমান শহরে বড়নীলপুর এলাকার শিব তলায় বাড়ি ভাড়া নিয়ে পরিবারকে নিয়ে থাকতেন ভ্যানচালক আদিবাসী সুমাই সরেন লকডাউনে দীর্ঘদিন কাজ বন্ধ থাকার ফলে রোজগার হারিয়েছেন তিনি। বাড়ির মালিক বাড়ি ছেড়ে দেওয়ার কথা না বললেও কয়েক মাস ধরে বাড়ি ভাড়া দিতে না পেরে নিজের বিবেক জ্ঞানে শনিবার রাত্রে পরিবারের তিনটি কন‍্যা ও স্ত্রীকে নিয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান তিনি। বর্ধমান শহরের বীরহাটা পুল লাগোয়া এলাকায় রাস্তার ধারে বৃষ্টির মধ্যে কোলে বাচ্চা মেয়ে ও স্ত্রী ও অন্য দুই মেয়েকে নিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি।‌ 

যুব তৃণমূল কংগ্রেসের একটি  অনুষ্ঠান শেষ করে বেরোনোর সময় এই দুঃস্থ পরিবারটিকে বৃষ্টিতে ভিজতে দেখেন মহিলা তৃণমূল নেত্রী  সারথী দত্ত। তারপরেই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারেন তার সমস্ত ঘটনার কথা সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ প্রশাসনকে জানান তিনি। বর্ধমান থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পড়ে আলোচনা করে রাস্তার ধারে পড়ে থাকা একটি অব্যবহার ঘর খুলে দেওয়া হয় পরিবারটিকে থাকার জন্য। এমনকি মহিলা তৃণমূলের পক্ষ থেকে কিছু খাবারের ব্যবস্থাও করা হয়। এদিন আর এক মহিলা তৃণমূল নেত্রী প্রতিমা শীল জানিয়েছেন, আপাতত একটি আস্তানার ব্যবস্থা করা হলো পরে আলোচনা করে এদের বন্দোবস্ত করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here