ঝিলিক দাস, বীরভূমঃ বেসরকারি লজে গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল বীরভূমের তারাপীঠে। পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে, মৃত গৃহবধূর নাম রুবিনা খাতুন, বাড়ি মুর্শিদাবাদের লালগোলা থানার ওমরহ এলাকায়। দিন তিনেক আগে স্বামীর সাথে এই লজে এসে ওঠে মৃত গৃহবধূর রুবিনা খাতুন। বৃহস্পতিবার সকালে নির্দিষ্ট সময়ের পর রুম থেকে কাউকে বেরিয়ে আসছে না দেখে হোটেল কর্তৃপক্ষের সন্দেহ হয়,  তারা তখন খবর দেয় তারাপীঠ থানায়। পুলিশ এসে ঘরের দরজা খুলে দেখে বিছানার উপর গৃহবধূর দেহ পরে রয়েছে। রুবিন খাতুনের দেহ উদ্ধার করে রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজে পাঠিয়ে দেয় পুলিশ।

 চিকিৎসকেরা জানান বেশ কয়েকঘন্টা আগেই মহিলার মৃত্যু হয়েছে। তবে প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের ধারণা শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে রুবিনা খাতুনকে। গৃহবধূর স্বামীর খোঁজে তল্লাশী অভিযান শুরু করেছে তারাপীঠ থানার পুলিশ। এর আগেও একাধিকবার তারাপিঠের বহু হোটেলে খুনের ঘটনা ঘটেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here