বিশ্বজিৎ বিশ্বাস, নদীয়াঃ ভুয়ো আইএএস ও ভুয়ো সিআইডি অফিসারের পর এবার ভুয়ো চিকিৎসক সন্দেহে এক চিকিৎসককে আটক করলো কল্যাণী থানার পুলিশ। ‘এ আর ফারুকী’ নামে ওই চিকিৎসক নিজেকে গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজিস্ট ও ডায়াবেটোলজিস্ট পরিচয় দিয়ে অন্য চিকিৎসকের রেজিস্ট্রেশন নম্বর ব্যবহার করে প্রাক্টিস চালাচ্ছিলেন বলে অভিযোগ। এদিন দুপুরে পুলিশ তাঁকে কল্যাণী শহরের ‘এ’ ব্লকের একটি ওষুধের দোকানের চেম্বার থেকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদের পর জানা যায় যে, ওই চিকিৎসক নিজেকে এমডি থেকে শুরু করে ডিএনবি ডিগ্রি প্রাপ্ত সহ একাধিক বিদেশী ডিগ্রির অধিকারী বলে প্রেসক্রিপশন লিখতেন। এ সবই ভুয়ো না সঠিক তা তদন্ত সাপেক্ষ। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তদন্তে সুবিধার্থে ডাক্তারের ডাক্তারী সার্টিফিকেটের প্রয়োজন। ডাক্তারি সার্টিফিকেট আনার উদ্দেশ্যে লিখিতভাবে পাঠানো হয় ডাক্তারের গাড়ির চালককে।

 ডাক্তারের গাড়ির চালকের দাবি তিনি দীর্ঘদিন কাজ করেননাই ডাক্তারের নিকট। বিগত দেড় বছর ধরেই তিনি গাড়ি চালকের কাজ করছেন চিকিৎসকের গাড়িতে। তাই তিনি জানান তিনি বিস্তারিত কিছুই জানেন না। তবে ভুয়া ডাক্তার শুনেই তিনি আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। তিনি জানান লিখিতভাবে আমাকে ছাড়া হয়েছে চিকিৎসকের সার্টিফিকেট  আনার জন্য। চালক জানান আমাকে সন্ধ্যা সাতটার মধ্যে আবার কল্যাণী থানাতে দেখা করতে হবে। যদিও এখনও তদন্ত সাপেক্ষ বিষয়টি , পুরো ঘটনার তদন্তে কল্যাণী থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here