রমা চ্যাটার্জি, গঙ্গারামপুরঃ তৃণমূলের গোষ্টিকোন্দল প্রকাশ্যে। গঙ্গারামপুর থানার হামজাপুর এলাকার ঘটনা। ঘটনায় আহত উভয়পক্ষের ৭জন। ঘটনার পর আহতদের ভর্তি করা হয়েছে গঙ্গারামপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। এদিকে এমন ঘটনার পর এলাকায় দেখা দিয়েছে চাপা উত্তেজনা।জানা গেছে আহতরা হলেন ইয়াকুব আলী খান (৬৭) ও আইনুদ্দিন মিয়া (৫০) বাড়ি হামজাপুর এলাকায়।অপরদিকে আহতরা হলেন লোকমান আলী (৪৫), আমজাত আলী (৪২), লিয়াকত আলী (৫০), লিটন আলী (২২) ও রবিউল ইসলাম (৩০)। সকলের বাড়ি হামজাপুর এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে খবর ২১শের বিধানসভা নির্বাচনের আগে থেকেই হামজাপুর এলাকায় বিপ্লবপন্থী নামে পরিচিত লিয়াকত আলী ও গৌতমপন্থী ইয়াকুব আলী খানের মধ্যে সংঘর্ষ চলছিল। নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা হতেই লিয়াকত আলীর বিরুদ্ধে দোলবিরোধী কাজের অভিযোগ এনে তাকে বহিস্কার করে তৃণমূল কংগ্রেস। 

        এরই মাঝে শুক্রবার রাস্তা দিয়ে চলাচল করা নিয়ে গৌতম পন্থী আইনুদ্দিন মিয়াকে মারধরের অভিযোগ ওঠে বিপ্লব পন্থী লিয়াকত আলীর লোকজনের বিরুদ্ধে।শুক্রবার রাতে এই ঘটনা বিশাল আকার ধারণ করে।এদিন রাতে কাজলতোর এলাকায় লাঠিসোটা নিয়ে উভয়পক্ষের লোকজন একে অপরের বিরুদ্ধে চড়াও হয়।যার জেরে ব্যাপক চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি হয় এলাকায়। ঘটনায় আহত হয়েছেন উভয়পক্ষের ৭জন। ঘটনার পর আহতদের উদ্ধার করে ভর্তি করা হয় গঙ্গারামপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। বর্তমানে সেখানেই চলছে তাদের চিকিৎসা। এই ঘটনার পর থেকে এলাকায় রয়েছে চাপা উত্তেজনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here