Breaking News

কোভিড – ১৯

 

পিআইবি, দিল্লিঃ •ভারতে গত ২৪ ঘন্টায় ৫৪ লক্ষ ২৪ হাজার টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে। 

•দেশজুড়ে টিকাকরণ অভিযানে এ পর্যন্ত ২৯ কোটি ৪৬লক্ষ টিকা দেওয়া হয়েছে। 

•গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৫০,৮৪৮ জন । 

•ভারতে চিকিৎসাধীন সংক্রমিতের সংখ্যা নিম্নমুখী । এই সংখ্যা আরো কমে হয়েছে ৬,৪৩,১৯৪। ৮২দিনের হিসেবে যা সর্বনিম্ন । 

•সারা দেশে এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৮৯ লক্ষ ৯৪হাজার ৮৫৫ জন। 

•গত চব্বিশ ঘন্টায় আরোগ্য লাভ করেছেন ৬৮,৮১৭ জন। 

•পর পর ৪১ দিন নতুন করে সংক্রমিতের থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা বেশী। 

•কোভিড মুক্ত হওয়ার বেড়ে হয়েছে হার ৯৬.৫৬%। 

•সাপ্তাহিক সংক্রমিতের হার ৫ শতাংশের নিচে রয়েছে, বর্তমানে ৩.১২%। 

•পরপর ১৬ দিন দৈনিক সংক্রমিতের হার ৫%র কম౼আজ এই হার ২.৬৭%। 

•নমুনা পরীক্ষার ক্ষমতা বেড়েছে, মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩৯ কোটি ৫৯ লক্ষ।

কোভিড – ১৯ এর বিষয়ে সর্বশেষ তথ্য – 

ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৫০,৪৮৪ জন। পর পর ১৬ দিন দেশে এই সংখ্যা ১ লক্ষের কম। কেন্দ্র এবং রাজ্য / কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলির যৌথ উদ্যোগে এই সাফল্য পাওয়া যাচ্ছে। ভারতে সক্রিয় সংক্রমিতের সংখ্যা নিম্নমুখী। এই সংখ্যা আরও কমে হয়েছে ৬,৪৩,১৯৪ জন। ৮২ দিন পর সক্রিয় চিকিৎসাধীনের সংখ্যা এত কম হল। 

গত ২৪ ঘণ্টায় সক্রিয় চিকিৎসাধীনের সংখ্যা ১৯,৩২৭ কমেছে। আজকের হিসেবে দেশে মোট সংক্রমিতের মাত্র ২.১৪ শতাংশ চিকিৎসাধীন। 

দেশে পর পর ৪১ দিন নতুন করে সংক্রমিতের থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৮,৮১৭ জন আরোগ্য লাভ করেছেন। এ পর্যন্ত মোট ২,৮৯,৯৪,৮৫৫ জন সুস্থ হয়ে ওঠেছেন। জাতীয় কোভিড মুক্তির হার ৯৬.৫৬ শতাংশ। 

গত ২৪ ঘন্টায় দেশে ১৯,০১,০৫৬ টি নমুনার পরীক্ষা করা হয়েছে। এপর্যন্ত দেশে ৩৯,৫৯,৭৩,১৯৮ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এক দিকে যেমন নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বেড়েছে, অন্যদিকে সংক্রমণের হার নিম্নমুখী। আজ এই হার ২.৬৭ শতাংশ। পর পর ১৬ দিন এই হার ৫ শতাংশের কম। সাপ্তাহিক সংক্রমণের হার ৩.১২ শতাংশ।

বিস্তারিত জানার জন্য নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন – https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1729604

কোভিড – ১৯ টিকাকরণে সর্বশেষ তথ্য – 

দেশে এ পর্যন্ত ২৯,৪৬,৩৯,৫১১ টি টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে। গতকাল টিকা দেওয়া হয়েছে ৫৪,২৪,৩৭৪ জনকে। স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে ১,০১,৪৫,৩৮২ জন টিকার প্রথম ডোজ এবং ৭১,১৪,০২১ জন টিকার দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন। প্রথম সারির করোনা যোদ্ধাদের মধ্যে ১,৭২,৭০,৮৮৯ জন প্রথম ডোজ এবং ৯১,৩৭,৫১১ জন দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন। ১৮-৪৪ বছর নাগরিকদের মধ্যে প্রথম ডোজ পেয়েছেন ৬,৫৯,৪১,৮৫৫ জন এবং দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন ১৪,২৮,১১৭ জন। ৪৫-৫৯ বছর বয়সী নাগরিকদের মধ্যে প্রথম ডোজ পেয়েছেন ৮,২৮,৯১,১৩০ জন। আর দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন ১,৩১,৫৭,৫৬২ জন। যাঁদের বয়স ৬০এর ওপরে তাঁদের মধ্যে ৬,৫৬,৪৫,২৪৮ জন প্রথম ডোজ এবং ২,১৯,০৭,৭৯৬ জন দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন। 

বিস্তারিত জানার জন্য নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন – https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1729605 

কোভিড – ১৯ এর টিকাকরণ; ভ্রান্ত ধারণা বনাম প্রকৃত তথ্য

যাদের ৯টি বিশেষ পরিচয় পত্রের কোনোটিই নেই এবং মোবাইল ফোনও নেই, তাদের জন্য টিকাকরণ অভিযানে বিশেষ ব্যবস্থা। 

প্রবীণ নাগরিক এবং ভিন্নভাবে সক্ষমদের জন্য বাড়ির কাছে টিকাকরণের ব্যবস্থা

আদিবাসী অঞ্চল ও গ্রামে কোভিড – ১৯ টিকাকরণ বেশি ভালো হয়েছে

এক শ্রেণীর সংবাদ মাধ্যমে বলা হয়েছে, প্রয়োজনীয় কারিগরি সহায়তা না থাকায় গৃহহীন মানুষদের কোভিড – ১৯ টিকাকরণের নিবন্ধীকরণ প্রক্রিয়া থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। এই প্রতিবেদনটিতে আরো বলা হয়েছে, ডিজিটাল প্রক্রিয়ায় নাম নথিভুক্ত করতে হবে, ইংরেজী জানতে হবে, কম্পিউটার অথবা স্মার্টফোনের সঙ্গে ইন্টারনেটের যোগাযোগ থাকতে হবে। তাহলেই টিকা পাওয়া যাবে। এই সংবাদের কোনো ভিত্তি নেই। 

এবিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন – https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1729674 

ভারতের গ্রামাঞ্চলে পরিবর্তিত নির্দেশিকা মেনে টিকাকরণের প্রথম দিন ৬৪ শতাংশ টিকা দেওয়া হয়েছে 

সংশোধিত নির্দেশিকা কার্যকর হওয়ার পর প্রথম দিনেই গ্রামীণ এলাকায় ৬৩.৬৮ শতাংশ টিকার ডোজ প্রধান করা হয়েছে। এই নিয়ে মোট ৫৬ লক্ষ ৯ হাজার টিকা গ্রামীণ টিকাকরণ কেন্দ্র থেকে দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে, শহর এলাকায় ৩১ লক্ষ ৯ হাজার মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। নীতি আয়োগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সদস্য ড. ভি কে পল নতুন দিল্লিতে মঙ্গলবার এক সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছেন যে, গ্রামীণ এলাকাকে টিকাকরণের আওতায় নিয়ে আসতে বিশেষ জোর দেওয়া হয়েছে। টিকাকরণ অভিযানের আওতায় আরো বেশি করে প্রত্যন্ত এলাকা ও গ্রাম অঞ্চলকে যুক্ত করতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। 

ড. পল আরো জানান যে, টিকাকরণ কেন্দ্রের ৭১ শতাংশই গ্রামাঞ্চলে গড়ে তোলা হয়েছে। সেখান থেকে ধারাবাহিকভাবে টিকা দেওয়া হচ্ছে। সাধারণ মানুষ যাতে আরো বেশি করে টিকা গ্রহণ প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে পারেন, তার জন্য এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, গত সোমবার একদিনে এপর্যন্ত সর্বাধিক ৮৮.০৯ লক্ষ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। ড. পল আরো জানান, নতুন এই টিকাকরণ অভিযানের ক্ষেত্রে সরকারি কেন্দ্রগুলি বড় ভূমিকা পালন করেছে। গত ২১ জুন এই সরকারি কেন্দ্র থেকে ৯২ শতাংশ টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, গতকাল ৪৬ শতাংশ মহিলা এবং ৫৩ শতাংশ পুরুষ টিকার ডোজ নিয়েছেন। লিঙ্গ বৈষম্য দূর করে মহিলাদের আরো বেশি করে টিকা গ্রহণে আগ্রহী করে তোলা প্রয়োজন বলেও তিনি জানান। 

এবিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন – https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1729684 

প্রধানমন্ত্রী গরীব কল্যাণ যোজনার চতুর্থ পর্যায়ে কেন্দ্র, জাতীয় খাদ্য নিরাপত্তা আইনের আওতাভুক্তদের জন্য অতিরিক্ত খাদ্যশস্য মজুত করেছে

প্রায় ২০৪ লক্ষ মেট্রিকটন খাদ্যশস্যের প্রয়োজন। এর ফলে দরিদ্র এবং কোভিডের কারণে আর্থিক সঙ্কটে থাকা ব্যক্তিদের জন্য অতিরিক্ত এই খাদ্যশস্যের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এবিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন – https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1729645 

সব রাজ্য, কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের জন্য আরো ৬১,১২০টি লিপোজামাল অ্যাম্ফোটেরিসিন বি –র ভায়াল বরাদ্দ করা হয়েছে : শ্রী ডি ভি সদানন্দ গৌড়া

কেন্দ্রীয় সার ও রসায়ন মন্ত্রী শ্রী ডি ভি সদানন্দ গৌড়া জানিয়েছেন, মিউকোরমাইকোসিসের চিকিৎসার জন্য ৬১,১২০টি লিপোজামাল অ্যাম্ফোটেরিসিন বি –র ভায়াল বরাদ্দ করা হয়েছে। 

এবিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন – https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1729639 

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক, মহারাষ্ট্র, কেরালা এবং মধ্যপ্রদেশকে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্টের বিষয়ে সতর্ক থাকতে পরামর্শ দিয়েছে। 

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক, মহারাষ্ট্র, কেরালা এবং মধ্যপ্রদেশকে জনস্বাস্থ্য সংক্রান্ত ব্যবস্থাপনার বিষয়ে সতর্ক থাকতে বলেছে। নির্ধারিত পরীক্ষাগারে এই ধরণের ব্যক্তিদের নমুনা সংগ্রহ করে এই ভাইরাসের শনাক্ত করতে পরামর্শ দিয়েছে। রাজ্যগুলির মুখ্য সচিবদের এর জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন কোভিড বিধি মেনে চলতে জনসাধারণকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। 

এবিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন –  https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1729459 

কোভিডের নতুন ঢেউ কেনো আসছে, নীতি আয়োগের স্বাস্থ্য বিষয়ের সদস্য সেই প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন। অনেক দেশ আছে যেখানে কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ে নি। আমরা যদি দায়িত্ব – জ্ঞানহীন আচরণ না করতাম, তাহলে মহামারীর পরিস্থিতি হতো না। ড. ভি কে পাল বলেছেন, মহামারীর নতুন ঢেউ আছড়ে পড়ার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করলে নতুন ঢেউয়ের সম্ভাবনা দেখা দিত না। ড. পাল সাংবাদিকদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের প্রেস বিবৃতি দেওয়ার সময় একথা বলেছেন। 

এবিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন –  https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1729477

কোভিড পরবর্তী বিশ্বে উত্তর – পূর্ব ভারত দেশের অগ্রগতিকে চালিত করবে : কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ড. জিতেন্দ্র সিং। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ড. জিতেন্দ্র সিং বলেছেন, কোভিড পরবর্তী সময়ে ভারতের উন্নয়নকে উত্তর – পূর্ব ভারত নেতৃত্ব দেবে। মন্ত্রী আরো বলেছেন, কোভিড ব্যবস্থাপনা সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উত্তর – পূর্ব ভারত, দেশের বাকি অংশের কাছে আদর্শ হয়ে উঠেছে। 

এবিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন –  https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1729459

পিআইবি -র বিভিন্ন আঞ্চলিক কেন্দ্র থেকে প্রাপ্ত তথ্য

কেরালা : রাজ্যে লকডাউনের বিধি নিষেধ আরো শিথিল করা হয়েছে। আগামীকাল থেকে নিয়ন্ত্রিতভাবে ধর্মস্থানগুলিতে মানুষ যেতে পারবেন। 

মহারাষ্ট্র : মহারাষ্ট্র সরকার পরিকল্পনা করেছে, যে সব গ্রামে কোভিড সংক্রমণ নেই, সেখানে অফলাইনে বিদ্য়ালয়ের পঠনপাঠন শুরু হবে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকরে এবিষয়ে বিস্তারিতভাবে জানিয়েছেন। রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী অধ্যাপক বর্ষা গাইকোয়ার্ড জানিয়েছেন, শিক্ষা মন্ত্রক দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষা সংক্রান্ত ব্যয়ভার বহন করার পরিকল্পনা করেছে।

About Burdwan Today

Check Also

টলিউড অভিনেতা নীল এবং অপরাজিতা স্মার্ট বাজারে জমজমাট জামাইষষ্ঠী উদযাপন করছেন

টুডে নিউজ সার্ভিস, কলকাতাঃ টলিউড অভিনেতা নীল ভট্টাচার্য এবং অপরাজিতা আঢ্য কলকাতার স্মার্ট বাজারে (লেক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *