দেবজিৎ দত্ত, বাঁকুড়াঃ চতুর্থ শ্রেণীর সুরোজ শা ও পঞ্চম শ্রেণীর নুরউদ্দিন শা পাত্রসায়রের ফকিরডাঙ্গার এই দুই ভাই সকাল হলেই বেরিয়ে পড়ে সাইকেল নিয়ে। তারপর স্থানীয় আইসক্রিম কারখানায় আইসক্রিম কিনে বৈশাখের তপ্ত রোদে গ্রামে গ্রামে ঘুরে তা বিক্রি করে বাড়ির পথ ধরে তারা। তাদের বয়সী ছেলে মেয়েরা যখন পিঠের পড়াশুনা আর খেলাধুলায় ব্যস্ত, তখন সুরজ-নুরউদ্দিনরা জীবন সংগ্রামে টিকে থাকতে বেছে নিয়েছে আইসক্রিম বিক্রির পেশাকেই।

কতই বা বয়স চতুর্থ শ্রেণীতে পড়া সুরোজ শা-এর।  মেরে কেটে হয়তো ন’বছর। চলতি গ্রীষ্মের দাবদাহের মধ্যে গ্রামে গ্রামে ঘুরে ক্লান্ত সে। আমাদের সাথে কথা বলতে গিয়ে রাস্তার পাশেই বসে পড়লো সে। তার কথায়, ‘আর পারছিনা, একটু বসি…’। তারপর সাইকের হ্যাণ্ডেলে ঝোলানো ব্যাগে রাখা জলের বোতল থেকে জল খেয়ে কিছুটা ধাতস্থ হলো সে।

ক্ষুদে এই দুই আইসক্রিম বিক্রেতার বাড়িতে গিয়ে দেখা গেল, নুন আনতে পান্তা ফুরানো সংসার। একটি ছোট্ট মাটির বাড়িতে গাদাগাদি করে ১৫ সদস্যের বাস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here